১০ টাকা কেজির ১৮৩ বস্তা চাল উদ্ধার

ডেস্ক রিপোর্ট» গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার ফজলুপুর ইউনিয়নে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা কেজির ১৮৩ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ফজলুপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ খাটিয়ামাড়ি (তালতলা) বাজারের পশ্চিমে মোকরব আলীর বাড়ি থেকে ১৫৯ ও শাহ আলমের বাড়ি থেকে ২৪ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়।

ফজলুপুর ইউনিয়নের ডিলার আজাহার আলী ও ট্যাগ অফিসার আল মামুন যোগসাজসে হতদরিদ্রদের মধ্যে কার্ড ও চাল বিতরণ না করে আত্মসাতের উদ্দেশ্যে চালগুলো সেখানে রেখেছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

ফজলুপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য (মেম্বার) হুকুম আলী জানান, ১০ টাকা কেজিতে চাল ক্রয় করতে ইউনিয়নে ১ হাজার ৪৬ জন সুবিধাভোগীর নামে কার্ড বরাদ্দ হয়। এরমধ্যে ডিলার আজাহার আলীর কাছ থেকে ৫২৩ জন সুবিধাভোগী চাল ক্রয় করবে। আজাহার আলী খাদ্যগুদাম থেকে দ্বিতীয় কিস্তির (সেপ্টেম্বর মাসের) চাল উত্তোলন করে তালতলা বাজারে তার গোডাউন ঘরে রাখেন। কিন্তু আজাহার আলী সুবিধাভোগীর মধ্যে কার্ড ও চাল বিতরণ না করে রাতের আঁধারে চালগুলো তালতলা বাজারের অদূরে মোকরব আলী ও শাহ আলমের বাড়িতে রেখে দেন। এছাড়া চাল বিতরণ হয়েছে মর্মে ট্যাগ অফিসার আল মামুনের সহযোগিতায় উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তার নিকট মাষ্টাররোল জমা দেন। এরপর সোমবার (১৭ অক্টোবর) সন্ধ্যার দিকে স্থানীয় লোকজন ওই বাড়িতে চালের বস্তা দেখে প্রশাসনকে খবর দেয়।

ফজলুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জয়নাল আবেদীন জালাল জানান, সারারাত চালের বস্তা পাহাড়া দিয়ে রাখেন স্থানীয় লোকজন। এরপর সকালে ইউএনও ও পুলিশ এসে চাল উদ্ধার করে। চালের ডিলার আজাহার আলী এলাকার হতদরিদ্রদের মাঝে কার্ড বিতরণ করেননি। তিনি এসব কার্ড নিজের কাছে রেখে চাল বিতরণ দেখিয়েছেন। অথচ চাল বিতরণ না করে ডিলার আজাহার আলী চালগুলো আত্মসাতের চেষ্টায় অন্যের বাড়িতে রাখেন।

ফুলছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল খালেক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে ইউএনও মোহাম্মদ আবদুল হালিম টলষ্টয়ের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে ১৮৩ বস্তা চাল উদ্ধার করে। বিষয়টি তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোহাম্মদ আবদুল হালিম টলষ্টয় জানান, উদ্ধার করা চালগুলো ইউপি সদস্য হুকুম আলীর হেফাজতে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় তদন্ত সাপেক্ষে ডিলারসহ জড়িত সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

প্রকাশক সম্পাদক : জাহাঙ্গীর কবির লিটন
এলাহী মার্কেট , ২য় তলা, বড় মসজিদ গলি, ট্রাংক রোড,ফেনী।
jagofeni24@gmail.com
© 2016 allrights reserved to JagoFeni24.Com | Desing & Development BY PopularITLtd.Com, Server Manneged BY PopularServer.Com